1. dailybanglarkhabor2010@gmail.com : দৈনিক বাংলার খবর : দৈনিক বাংলার খবর
বৃহস্পতিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২৪, ১০:৪৮ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
ডুমুরিয়ায় মহান শহীদ দিবস পালিত মুজিব শতবর্ষ জাদুঘরের ভিত্তিপ্রস্তর উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী খুলনা মহানগর পুলিশের মাদক বিরোধী অভিযানে ৯ জন গ্রেফতার আনসার ও ভিডিপি খুলনা রেঞ্জ এ শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস উদযাপন খুলনায় মহান শহিদ দিবস ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস পালিত দুই চিকিৎসক গ্রেপ্তার, ডায়াগনস্টিক সেন্টার বন্ধ-সুন্নতে খৎনা করাতে গিয়ে শিশুর মৃত্যু প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে সাম্প্রদায়িকতার বীজবৃক্ষ সমূলে তুলে ফেলব-ওবায়দুল কাদের আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবসে ভাষার টানে দুই বাংলার ভাষা প্রেমীদের মিলনমেলা বসে বেনাপোল নো-ম্যান্সল্যান্ডে অবশেষে জোট সরকার গঠনে পাকিস্তানে ঐকমত্য ভাষা শহীদদের প্রতি রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর শ্রদ্ধা

শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণে করণীয় বিষয়ক সেমিনার অনুষ্ঠিত

  • প্রকাশিত: বুধবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২৩
  • ৭৫ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিনিধি::‘শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণে আমাদের করণীয় এবং নীরব এলাকা বাস্তবায়ন অগ্রগতি’ বিষয়ক এক কর্মশালা বুধবার সকালে খুলনা জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালায় প্রধান অতিথি ছিলেন খুলনার অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার (সার্বিক) মোঃ ফিরোজ শাহ। খুলনা জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় এবং পরিবেশ অধিদপ্তরের শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণে সম্বন্বিত ও অংশীদারিত্বমূলক প্রকল্পের আওতায় কর্মশালাটি আয়োজন করা হয়।
অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তাঁর বক্তব্যে বলেন, ভবিষ্যৎ প্রজন্মকে সুস্থ রাখতে শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণের বিকল্প নেই। মানুষের সচেতনতা ও আইনের যথাযথ প্রয়োগের মাধ্যমে শব্দদূষণ নিয়ন্ত্রণ করা সম্ভব। আমাদের চারপাশে থাকা বিভিন্ন উৎস হতে অনেক সময় উচ্চমাত্রার শব্দ উৎপন্ন হয়। এমনকি হাতে থাকা মোবাইল ফোনের উচ্চশব্দের রিংটোনের শব্দও আমাদের শ্রæতিকে ক্ষতিগ্রস্ত করে।
অনুষ্ঠানে জানানো হয়, বিশ^ স্বাস্থ্য সংস্থার দেয়া তথ্য মতে বিশে^র মোট জনসংখ্যার পাঁচ শতাংশ মানুষ শব্দদূষণের শিকার। মানবদেহের ৩০টি কঠিন রোগের অন্যতম কারণ শব্দদূষণ। ৫০ ডেসিবলের চেয়ে উচ্চ শব্দ মানবদেহে উচ্চ রক্তচাপ, ৬৫ ডেসিবলের চেয়ে উচ্চ শব্দ হৃদরোগ সৃষ্টিকারী, ৯০ ডেসিবলের বেশি উচ্চ শব্দ ¯œায়ুতন্ত্রের জন্য ক্ষতিকর এবং ১২০ ডেসিবলের চেয়ে উচ্চ শব্দ মানুষের শ্রবণশক্তি পুরোপুরি নষ্ট করে দিতে পারে। এমনকি গর্ভবতী নারী শব্দদূষণের মধ্যে থাকলে বধির সন্তানের জন্ম হতে পারে। এছাড়া শব্দদূষণের কারণে মাথাধরা, আতঙ্ক-অবসাদগ্রস্ত হওয়া, অনিদ্রা ও শিশুদের মেধার বিকাশ ব্যাহত হয়। শব্দদূষণ (নিয়ন্ত্রণ) বিধিমালা, ২০০৬ অনুযায়ী নীরব ঘোষিত এলাকায় সর্বোচ্চ ৫০ ডেসিবল, আবাসিক এলাকায় ৫৫ ডেসিবল, বাণিজ্যিক এলাকায় ৭০ ডেসিবল ও শিল্প এলাকায় সর্বোচ্চ ৭৫ ডেসিবলের বেশি মাত্রার শব্দ সৃষ্টির সুযোগ নেই। তবে পরিবেশ অধিদপ্তরের ২০১৭ সালের জরিপে খুলনা শহরের কিছু স্থানে শব্দের সর্বোচ্চ মাত্রা ১৩২ ডেসিবল পর্যন্ত শনাক্ত করা হয়েছে। শব্দ দূষণ (নিয়ন্ত্রণ) বিধিমালা, ২০০৬ অনুযায়ী নীরব ঘোষিত এলাকায় হর্ন বাজানো দন্ডনীয় অপরাধ। আবাসিক এলাকার পাঁচশত মিটারের মধ্যে শব্দ সৃষ্টিকারী যন্ত্র ব্যবহার করা যাবে না। তবে গুরুত্বপূর্ণ কাজের ক্ষেত্রে কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়ে দিনে সর্বোচ্চ পাঁচ ঘন্টা মানমাত্রার চেয়ে বেশি শব্দ সৃষ্টিকারী যন্ত্র ব্যবহার করা যেতে পারে। অনুমতি ব্যতীত শব্দ সৃষ্টি করলে প্রথমবার অপরাধের ক্ষেত্রে একমাস কারাদন্ড বা অনধিক পাঁচ হাজার টাকা অর্থদন্ড এবং পরবর্তীতে প্রতিবার অপরাধের জন্য ছয় মাস কারাদন্ড বা অনধিক ১০ হাজার টাকা অর্থদন্ড বা উভয় দন্ড আরোপ করা যেতে পারে।
খুলনা জেলা প্রশাসক খন্দকার ইয়াসির আরেফীনের সভাপতিত্বে কর্মশালায় বিশেষ অতিথি ছিলেন মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (ক্রাইম) মোঃ সাজিদ হোসেন, উপপুলিশ কমিশনার (ট্রাফিক) মনিরা সুলতানা ও ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের সিনিয়র কনসালট্যান্ট ডাঃ কাজী আবু রাশেদ। অনুষ্ঠানে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন পরিবেশ অধিদপ্তরের খুলনা বিভাগীয় কার্যালয়ের পরিচালক মোঃ ইকবাল হোসেন। অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণকারীদের মধ্যে খুলনা সিটি কর্পোরেশন (কেসিসি)’র প্যানেল মেয়র-২ মোঃ আলী আকবর টিপু, সিনিয়র সাংবাদিক মো: মুন্সি মাহবুব আলম সোহাগ, এসএম জাহিদ হোসেন, কেসিসি কাউন্সিলর জেড এ মাহমুদ ডন প্রমুখ বক্তৃতা করেন। কর্মশালায় জনপ্রতিনিধি, সরকারি কর্মকর্তা, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধি, গণমাধ্যমকর্মী, মসজিদের ইমাম ও গণপরিবহনের চালকরা অংশ গ্রহণ করেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক বাংলার খবর
Theme Customized By BreakingNews