1. dailybanglarkhabor2010@gmail.com : দৈনিক বাংলার খবর : দৈনিক বাংলার খবর
রবিবার, ০৩ মার্চ ২০২৪, ১১:১৭ অপরাহ্ন
সর্বশেষ :
ক্রিকেটবিশ্বের কাছে সহায়তা চাইলেন ওয়েস্ট ইন্ডিজ চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর গেলেন ওবায়দুল কাদের বাংলাদেশিকে ধরিয়ে দিতে বড় অঙ্কের পুরস্কার ঘোষণা এফবিআইয়ের মাওলানা লুৎফুর রহমানের নামাজে জানাজা বাইতুল মোকাররমে জাতীয় পরিচয়পত্রে নামের সংশোধন চেয়ে আবেদন করেছিলেন অভিশ্রুতি পাইকগাছার ৩ ব্যক্তিকে জেল-জরিমানা বাগেরহাটে ৫ বছরের শিশুকে ধর্ষণ চেষ্টা, ভ্যান চালক আটক মোরেলগঞ্জে দাখিল পরীক্ষার প্রশ্ন ফাঁসের অপরাধে যুবক আটক, ২১ শিক্ষককে অব্যাহতি, ৩ জনের নামে মামলা বাগেরহাটে প্রেসরিলিজ গাইড লাইন ও ভিডিও এডিটিং কর্মশালা খালিশপুর কলেজিয়েট গার্লস স্কুলের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ

চলে গেলেন ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন

  • প্রকাশিত: শনিবার, ৯ ডিসেম্বর, ২০২৩
  • ৪৮ বার পড়া হয়েছে

নিজস্ব প্রতিবেদক::সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা ও সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন মারা গেছেন (ইন্না লিল্লাহি ওয়া ইন্না ইলাহি রাজিউন)।

শনিবার (৯ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সাড়ে ৬টায় রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন। মৃত্যুকালে তিনি দুই ছেলে ও এক মেয়ে ছাড়াও অসংখ্য গুণগ্রাহী রেখে গেছেন।

মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার ব্যক্তিগত সহকারী (পিএস) রাজু মিয়া। তিনি বলেন, আজ সন্ধ্যায় রাজধানীর একটি বেসরকারি হাসপাতালে ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন মারা গেছেন। তার প্রথম জানাজা অনুষ্ঠিত হবে রাজধানীর বারিধারায়, আর দ্বিতীয় জানাজা হবে সুপ্রিম কোর্ট প্রাঙ্গণে।

২০০৭ সালে ড. ফখরুদ্দীন আহমদের নেতৃত্বে গঠিত তত্ত্ববধায়ক সরকারের তথ্য, আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রণালয়, গৃহায়ণ ও গণপূর্ত এবং ভূমি মন্ত্রণালয়ের দায়িত্ব পালন করেন ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন।

তিনি বিখ্যাত সাংবাদিক তোফাজ্জল হোসেন মানিক মিয়ার ছেলে। মইনুল হোসেন ১৯৬১ সালে রাষ্ট্রবিজ্ঞানে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেন। এরপরে মিডল টেম্পল এ আইন বিষয়ক পড়াশোনা করেছেন। ১৯৬৫ সালে বার থেকে ব্যারিস্টার-ইন-ল ডিগ্রি অর্জন করেন তিনি।

১৯৭৩ সালে পিরোজপুর থেকে আওয়ামী লীগের মনোনয়ন নিয়ে সংসদ সদস্য নির্বাচিত হন ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন। তৎকালীন রাষ্ট্রপতি শেখ মুজিবুর রহমান ১৯৭৫ সালে সংবিধানের চতুর্থ সংশোধনের মাধ্যমে বাংলাদেশে একদলীয় শাসন ব্যবস্থার প্রচলন করলে, মইনুল তার পদ থেকে স্বেচ্ছায় পদত্যাগ করেন। শেখ মুজিবুর রহমানের মৃত্যুর পরে তিনি খন্দকার মোশতাক আহমেদের পরিচালিত দল ডেমোক্র্যাটিক লীগে যোগ দেন এবং ৩ নভেম্বর মোশতাক সরকারের পতন পর্যন্ত ডেমোক্র্যাটিক লীগেই ছিলেন।

সংবাদ মালিকদের সংগঠন বাংলাদেশ সংবাদপত্র পরিষদের সভাপতি হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন মইনুল হোসেন। এছাড়া তিনি সুপ্রিমকোর্ট বার এসোসিয়েশনের সভাপতি হিসেবে ২০০০-২০০১ মেয়াদে নির্বাচিত হন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক বাংলার খবর
Theme Customized By BreakingNews