1. dailybanglarkhabor2010@gmail.com : দৈনিক বাংলার খবর : দৈনিক বাংলার খবর
রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
ফুটবলের উন্নয়নে সহযোগিতা অব্যাহত রাখবে সরকার-প্রধানমন্ত্রী যাত্রী হয়রানি বন্ধে দালালমুক্ত করা হলো বেনাপোল চেকপোষ্ট কাস্টমস-ইমিগ্রেশন বিয়ের পিঁড়িতে বসছেন সোহিনী কোটাবিরোধীদের আন্দোলন থামিয়ে আদালতে আসা উচিত-স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ডুমুরিয়ায় ঐতিহ্যবাহী রঘুনাথপুর হাইস্কুলের নতুন অডিটরিয়াম ভবন উদ্বোধন কেএমপি’র মাদক বিরোধী অভিযানে ১ কেজি ৪০ গাঁজা, ৭৫ পিস ইয়াবাসহ ৮ জন গ্রেফতার হোম না অ্যাওয়ে, যে জার্সি পরে ফাইনালে খেলবেন আর্জেন্টিনা ৪৩ হাজার শিক্ষার্থীকে জাল সনদ দিয়েছে বিশ্ববিদ্যালয় চীন সফর নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর সংবাদ সম্মেলন রোববার কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের অন্য কেউ ইন্ধন দিতে পারে-ডিবি প্রধান

জিম্মি জাহাজের ৪ সোমালিয়ান জলদস্যুর ছবি, হাতে ভারী অস্ত্র

  • প্রকাশিত: শনিবার, ১৬ মার্চ, ২০২৪
  • ৬৭ বার পড়া হয়েছে

ডেস্ক::ভারত মহাসাগর হয়ে মোজাম্বিক থেকে আরব আমিরাতের আল হামরিয়া বন্দরের দিকে যাওয়া জাহাজ এমভি আবদুল্লাহতে অবস্থানরত চার সোমালি জলদস্যুর ছবি প্রকাশ করেছে ভারতীয় নৌবাহিনী। ছবিতে জাহাজে টহলরত জলদস্যুদের চিহ্নিত করা হয়েছে। যাদের সবার হাতেই ভারী অস্ত্র রয়েছে।

শুক্রবার (১৫ মার্চ) বিকেল ৫টার দিকে ভারতীয় নৌবাহিনীর মুখপাত্রের এক্স (সাবেক টুইটার) অ্যাকাউন্ট থেকে ছবিটি প্রকাশ করা হয়।

ওই পোস্টে জানানো হয়, সোমালিয়ান জলদস্যুদের হাতে জিম্মি বাংলাদেশি জাহাজ এমভি আবদুল্লাহকে সহায়তা করতে কাছাকাছি এলাকায় একটি ভারতীয় যুদ্ধজাহাজ ও একটি দূরপাল্লার সামুদ্রিক টহল উড়োজাহাজ অবস্থান করছে।

এক বিবৃতিতে ভারতীয় নৌবাহিনী জানিয়েছে, এমভি আবদুল্লাহর হাইজ্যাক হওয়ার খবর পেয়ে গত মঙ্গলবারই (১২ মার্চ) ভারতীয় নৌবাহিনী দূরপাল্লার মেরিটাইম পেট্রোল এয়ারক্র্যাফ্ট এলআরএমপি পি-৮১ মোতায়েন করে।

পরে ভারতীয় নৌবাহিনী একটি যুদ্ধজাহাজ মোতায়েন করে। যুদ্ধ জাহাজটি বৃহস্পতিবার জিম্মি জাহাজটিকে নজরদারি করতে শুরু করে।

পরে, হাইজ্যাক করা ক্রু সদস্যদের (বাংলাদেশি নাগরিক) নিরাপত্তা নিশ্চিত করার জন্য যুদ্ধজাহাজটি সোমালিয়ার আঞ্চলিক জলসীমায় পৌঁছানো পর্যন্ত এমভি আবদুল্লাহর কাছাকাছি অবস্থানে থাকে।

এ ছাড়াও ইউরোপীয় ইউনিয়নের নৌবাহিনীও অপারেশন আটলান্টার আওতায় জিম্মি বাংলাদেশি জাহাজটিকে অনুসরণ করছে। ইইউ নৌবাহিনী জানিয়েছে, তাদের সংগৃহীত ভিজ্যুয়াল তথ্যে দেখা গেছে, বর্তমানে জাহাজটিতে কমপক্ষে ১২ জন জলদস্যু অবস্থান করছে।

ইউরোপীয় ইউনিয়নের নৌবাহিনী আরও বলছে, সোমালিয়ান জলদস্যুরা ডিসেম্বরে মাল্টিজ-পতাকাবাহী বাল্ক কার্গো জাহাজ রুয়েনকে আটক করেছিল। তারা তিন দিন আগে সোমালিয়ার উপকূলে বাংলাদেশের পতাকাবাহী একটি কার্গো জাহাজ দখলের জন্য মাল্টিজ জাহাজটি ব্যবহার করে থাকতে পারে।

এদিকে শুক্রবার রাতে বাংলাদেশ মার্চেন্ট মেরিন অফিসার্স অ্যাসোসিয়েশনের (বিএমএমওএ) পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, এমভি আব্দুল্লাহকে যেখানে নোঙর করা ছিল, সেখান থেকে আজ ৪৫-৫০ নটিক্যাল মাইল উত্তর দিকে সরিয়ে সোমালিয়ার গদবজিরান উপকূলে নেওয়া হয়েছে। জাহাজটিকে গদবজিরান শহর থেকে ৪ নটিক্যাল মাইল দূরে নোঙর করা হয়েছে।

এস আর শিপিংয়ের প্রধান নির্বাহী ক্যাপ্টেন মেহেরুল করিম জানিয়েছেন, কী কারণে জলদস্যুরা জাহাজটি সরিয়ে নিয়েছে তা জানি না। তবে আমরা জাহাজের অবস্থানের বিষয়ে নজর রাখছি।

ধারণা করা হচ্ছে, দস্যুরা নিজেদের নিয়ন্ত্রণ বজায় রাখতে জাহাজের অবস্থান পরিবর্তন করছে।

উল্লেখ্য, পণ্যবাহী জাহাজটি কয়লা নিয়ে ভারত মহাসাগর হয়ে মোজাম্বিক থেকে আরব আমিরাতের আল হামরিয়া বন্দরের দিকে যাচ্ছিল। পথে গত মঙ্গলবার দুপুর দেড়টায় এমভি আবদুল্লাহ জলদস্যুদের কবলে পড়ে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক বাংলার খবর
Theme Customized By BreakingNews