1. dailybanglarkhabor2010@gmail.com : দৈনিক বাংলার খবর : দৈনিক বাংলার খবর
সোমবার, ২২ জুলাই ২০২৪, ০১:৩০ পূর্বাহ্ন
সর্বশেষ :
বিটিভিতে ভয়াবহ আগুন, সম্প্রচার বন্ধ বিটিভিতে ভয়াবহ আগুন, সম্প্রচার বন্ধ পুলিশের ওয়েবসাইট হ্যাক মহাখালীতে দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ভবনে হামলা, আগুন দিল দুর্বৃত্তরা ‘আমার বাচ্চাকে ওরা মেরে ফেলেছে’ কোটা সংস্কার নিয়ে প্রয়োজনে সংসদে আইন পাস, বললেন জনপ্রশাসনমন্ত্রী সরকার শিক্ষার্থীদের ওপর বেআইনিভাবে শক্তি প্রয়োগ করেছে-অ্যামনেস্টি ইন্টারন্যাশনাল কোটা সংস্কার আন্দোলন: উত্তরায় নিহত ৫ দাকোপে মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও মুক্তিযোদ্ধা সন্তানদের উদ্যোগে প্রতিবাদ সমাবেশ ও স্মারকলিপি প্রদান জাতীয় শোক দিবস পালনের প্রস্তুতিসভা অনুষ্ঠিত সাংবাদিক শরিফ ও বেনজীর বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমূলক মামলা দায়ের করায় রূপসা প্রেসক্লাব নেতৃবৃন্দের নিন্দা

পাইকগাছায় ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে ট্যাংকি বিক্রয়ের অভিযোগ

  • প্রকাশিত: শনিবার, ২২ জুন, ২০২৪
  • ১৭ বার পড়া হয়েছে

পাইকগাছা (খুলনা) প্রতিনিধি:: খুলনার পাইকগাছায় লতা ইউনিয়নের ৫নং ওয়ার্ড সদস্য পুলকেশ রায় ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান এর দায়িত্বে থাকাকালিন সরকারি ট্যাংকি বিক্রির অভিযোগ উঠেছে। এছাড়া তাহার বিরুদ্ধে ব্যাপক অনিয়ম, দুর্নীতি ও অর্থ আত্মসাতে অভিযোগ পাওয়া গেছে। উপজেলা নির্বাহী অফিসার দপ্তরে ১০ জন ইউপি সদস্য এ লিখিত অভিযোগ করেছেন। অভিযোগে প্রকাশ উপজেলার লতা ইউনিয়ন পরিষদের ৫নম্বর ওয়ার্ড সদস্য পুলকেশ রায়। বিগত ২০২৩ সালে অনৈতিক কার্মকান্ডের দায়ে লতা ইউপি চেয়ারম্যান কাজল কান্তি বিশ্বাস সাময়িক বরখাস্ত থাকেন। সেই সময় লতার ৫নং ওয়ার্ড সদস্য পুলকেশ রায় ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যানের দায়িত্ব পালন করেন। এসময় তিনি ৭৬টি পানির ট্যাংকি প্রদান কালেপ্রতিটি ট্যাংকি থেকে ৬-৮ হাজার টাকা আদায় করেন। রাস্তা সংস্কারের নামে প্রায় ১ কিলোমিটার রাস্তার ৮০ হাজার ইট তুলে অন্য কাজে লাগিয়ে সেই টাকা আত্মসাৎ করেন। ইউনিয়ন পরিষদের সামনে পাকা স্টেজ নির্মানের জন্য ২ লাখ ৩৪ হাজার টাকা বরাদ্দ হয়। যার মধ্যে সাবেক সংসদ সদস্য ১লাখ টাকা প্রদান করেন। বাহিরবুনিয়া মসজিদ সংলগ্ন ব্রীজের বিপরীত কাটামারি রাস্তা সংস্কারের ১ লাখ টাকা ও কাঠামারি বাজার খেয়াঘাট সংলগ্ন রাস্তা সংস্কারের বরাদ্দকৃত টাকা আত্মসাৎ করেছেন মর্মে অভিযোগে প্রকাশ। বৃহস্পতিবার এব্যাপারে ১০ জন ইউপি সদস্য বাবলু সরদার, শওকত হাওলাদার, স্বপন কুমার মন্ডল, আজিজুল বিশ্বাস, রিনা পারভীন, বিজন কুমার হালদার, কুমারেশ মন্ডল, চম্পা বেগম, ফেরদৌস ঢালী ও মঙ্গল মন্ডল উপজেলা নির্বাহী অফিসার দপ্তরে এ অভিযোগ করেন।

চেয়ারম্যান কাজল কান্তি বিশ্বাস বলেন, কেউ দরখাস্ত করেছে কিনা তা আমার জানা নেই। যদি কেউ অন্যায় করে সেটা তার ব্যক্তিগত বিষয়।

অভিযুক্ত ইউপি সদস্য পুলকেশ রায় বলেন আমার ওয়ার্ডে বরাদ্দ একটু বেশি হওয়ার কারণে আমার উপর ঈর্ষান্বিত হয়ে অভিযোগ করছে। আমি কোন অনিয়ম বা দুর্নীতি করিনি।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মাহেরা নাজনীন বলেন অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত পূর্বক আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন
© সর্বস্বত্ব স্বত্বাধিকার সংরক্ষিত দৈনিক বাংলার খবর
Theme Customized By BreakingNews